shasthokothaxyz@gmail.com

+8801953906973

কুসুম গরম পানি পান করলে সাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে অনেক।

আমাদের মানব দেহে ৭০ শতাংশই পানি আছে।আমাদের প্রতিদিন কমপক্ষে ৮ গ্লাস পানি খাওয়া প্রয়োজন।

fgggg Md Ashiqur Rahman ভিউ: 371

Logo

পোস্ট আপডেট 2020-12-27 16:48:18   10 months ago

পানির অপর নাম জীবন।সুস্হ থাকলে হলে আমাদের প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করা প্রয়োজন।শরীরের আর্দ‍্রতা বজায় রাখা,শরীরকে সচল রাখা,ত্বক ও চুলকে ঠিক রাখা কিডনি ঠিক রাখতে কোলেস্টেরলের মাএা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য পানি খুবই উপকারী।তবে ঠান্ডা পানি না খেয়ে উষ্ণ পানি পান করা বেশি উপকারী।দিনে ১ থেকে 2 গ্লাস গরম পানি পান করা স্বাস্থ্যের জন‍্য ভালো।কুসুম গরম পানি হজম ক্ষমতা ও রক্ত  চলাচলকে উন্নত করে ওজন কমায় এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

আসুন জেনে নেই গরম পানিতে কী কী উপকার পাওয়া যায়....


১)কুসুম গরম পানি ঘাম ও মূএের মধ্য দিকে শরীরের ক্ষতিকর টক্সিন দূর করতে সাহায্য করে যা শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

২)পানি হজম শক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।পাকস্হলী মধ্য দিয়ে  যাওয়ার সময় হজম  অঙ্গগুলোকে আর ও ভালো ভাবে হাইড্রেটেড করে।ফলে বর্জ‍্য বস্তু শরীর থেকে  নিষ্কাশিত হয় এবং হজম ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।রাতে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস কুসুম  গরম পানি পান করুন।

৩)সকালে এক গ্লাস পানি পানের ফলে রক্তের ক্ষতিকর  টক্সিন দ্রত শরীর থেকে বের হয়ে যায় এতে আমাদের ত্বকের লুকোনো উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায়।ত্বক হয়ে উঠে ভেতর থেকে উজ্জ্বল।


৪)খালি পেটে পানি পানের ফলে আমাদের দেহে রক্ত উৎপাদনের মাএা বৃদ্ধি পায় এবং নতুন রক্তের কোষ গঠিত হয়।একই ভাবে দেহের মাংসপেশীর কোষ গঠনে সহায়তা করে।

৫)আমাদের মস্তিষ্কে ৭৫% পযর্ন্ত পানি।সকালে এক গ্লাগ পানি মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে।সারাদিন মস্তিষ্ক সচল রাখে।

৬)অতিরিক্ত ওজন কমাতে সাহায্য করে কুসুম গরম পানি।শরীরের অতিরিক্ত মেদ ঝরায় ও খিদে কমায়।প্রতিদিন সকালে খালি পেটে লেবু বা মধু দিয়ে এক গ্লাস গরম পানিতে মিশিয়ে পান করতে পারেন।

৭)র্সদি ও নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া থেকে মুক্তি পেতে হলে গরম পানি পান করুন।

Kinemaster watermark remove Apps



কমেন্ট


সাম্প্রতিক মন্তব্য


Logo

Upma tewari 10 months ago

Nice