shasthokothaxyz@gmail.com

+8801953906973

চোখে ছানি পড়ার লক্ষণ

চোখ আমাদের অমূল্য সম্পদ। চোখ না থাকলে আমরা সকলেই নিরূপায়।তাই চোখের যত্ন নেওয়া উচিত।

fgggg Md Ashiqur Rahman ভিউ: 337

Logo

পোস্ট আপডেট 2020-12-30 00:01:22   1 year ago

চোখে নানারকমের সমস্যা দেখা দিতে পারে।যেমন একটি হলো চোখে ছানি পড়া। চোখের ছানি সাধারণত বয়স্কদের বেশি হয়। ৪০ থেকে ৫০ বছর বয়স্কদের জন্য এটা খুবই সাধারণ একটি অসুখ। তবে সব সময় বয়স্কদেরই হবে এমনটা ভাবা ভুল। ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের অপেক্ষাকৃত কম বয়সে ছানি হতে দেখা যায়। এমনকি ছানি হতে পারে ছোটদেরও। গর্ভবতী মায়ের কিছু জীবাণু সংক্রমণ হলে সন্তানের চোখে ছানি থাকতে পারে জন্ম থেকেই। গর্ভবতী মায়ের গর্ভধারণের তিন মাসের মধ্যে এক্স-রের মতো কোনো বিকিরণ রশ্মির সংস্পর্শে এলেও গর্ভের সন্তানের জন্মগত ছানির ঝুঁকি থাকে। ছোটদের বা বড়দের চোখে মারাত্মক আঘাত থেকে ছানি হতে পারে। ওয়েল্ডিংয়ের কাজ করেন কিংবা বিকিরণ এলাকায় কাজ করেন, এমন ব্যক্তির ছানি হওয়ার ঝুঁকি থাকে যেকোনো বয়সে।

চোখে ছানি পড়ার প্রধান কারণ বয়সের সঙ্গে সঙ্গে লেন্সের উপাদান প্রোটিনের গঠন নষ্ট হয়ে যাওয়া। 


চলুন দেখা যাক ছানি পড়ার কিছু লক্ষণ?

★ চোখে ছানি পড়ার প্রধান কারণ হল বয়স বাড়ার সঙ্গে লেন্স নষ্ট হয়ে যাওয়া। চোখের লেন্সের উপাদান হল প্রোটিন। এই প্রোটিনের গঠন নষ্ট হয়ে গেলে ছানি পড়ে।এ ছাড়াও আরও অনেক কারণে চোখে ছানি পড়তে পারে।

★ কয়েকটি রোগের কারণে ছানি পড়ে। তার মধ্যে একটি ডায়াবেটিস।

★ দীর্ঘ দিন ধরে চোখে সংক্রমণ বা প্রদাহজনিত সমস্যা চললে।

★ বংশগত কারণেও অনেক সময় ছানি পড়ে।

★ অতিরিক্ত তাপ বা রোদে দীর্ঘ সময় ধরে কাজ করলেও সূর্যের আল্ট্রাভায়লেট রশ্মির কুপ্রভাবে চোখে ছানি পড়তে পারে।

★ দীর্ঘ দিন ধরে স্টেরয়েড জাতীয় ওষুধ খেলে।

★ বেশি পরিমাণে ধূমপান করলেও এই সমস্যা হয়।

★ কোনো ভাবে চোখে আঘাত লাগলেও পরবর্তী কালে হতে পারে।



কমেন্ট


সাম্প্রতিক মন্তব্য


Logo

Upma tewari 1 year ago

Thanks

Logo

Sony Akter 1 year ago

thanks

Logo

স্বাস্থ্য কথা 1 year ago

Nice