shasthokothaxyz@gmail.com

+8801953906973

সিঙ্গারা বানানোর রেসিপি

আমাদের দেশে তেলে ভাজা যত ধরনের নাস্তা প্রচলিত আছে তার মাঝে সিঙ্গারার কোন তুলনা হয় না।

fgggg Md Ashiqur Rahman ভিউ: 237

Logo

পোস্ট আপডেট 2021-01-14 00:05:42   10 months ago

রাস্তার ধারের রেস্তঁরা গুলোতে  সিঙ্গারা ভাজতে না ভাজতে কাস্টমারের পেটে উধাও।  কিন্তু সেগুলো কতটুকু স্বাস্থ্য সম্মত? প্রিয়জনের স্বাস্থ্যের সাথে কোন কম্প্রোমাইজ করতে না চাইলে ঘরেই সিঙ্গারা তৈরী করুন। পদ্ধতি দেখে নিন রান্নাঘর ডট কম থেকে।

আলু কিউব করে কাটা ৩ কাপ
সিদ্ধ ডাবলি  ১ কাপ
ভাঁজা চিনা বাদাম ১/৪ কাপ
পাঁচফোড়ন ২ চা চামচ
পেঁয়াজ কুঁচি ১ কাপ
আদা রসুন বাটা ২ চা চামচ
জিরা গুঁড়া ১/২ চা চামচ
দারুচিনি গুঁড়া ১/৪ চা চামচ
এলাচ ১ টি
হলুদ ১/৮ চা চামচ
লবন পরিমানমত
কাঁচামরিচ ফালি ২ টি
ধনিয়া পাতা কুঁচি ১/৪ কাপ
তেল ২ টেবিল চামচ
পানি ১/২ কাপ


সিঙ্গারার খামিরের জন্য


ময়দা ৩ কাপ
কালোজিরা ২ চা চামচ
লবন ১ চা চামচ
তেল ৪.৫ টেবিল চামচ
ঠাণ্ডা পানি ৩/৪ কাপ
তেল ৩ কাপ (সিঙ্গারা ভাজার জন্য)



সিঙ্গারা নির্দেশনা 
১। প্রথমে ময়দা, কালোজিরা, লবন, তেল এবং পানি মিশিয়ে শক্ত খামির তৈরি করে নিন। খামির গরম ভেজা কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখুন ঘণ্টাখানেক।
২। প্যানে তেল নিয়ে চুলায় গরম হতে দিন। তেল গরম হলে একে একে পাঁচফোড়ন, পেঁয়াজ, কাচামরিচ, আদা-রসুন বাটা, জিরা, লবন এবং হলুদ দিন। সব ভালকরে নেড়ে সামান্য পানি দিয়ে মশলা কষিয়ে নিন।
৩। মশলা কষানো হয়ে গেলে এতে ডাবলি ঢেলে ভাল করে নেড়ে ঢেকে দিন। এরপর এর মধ্যে আলু দিয়ে আবার সব নেড়ে মিশিয়ে নিন।
৪। এখন প্রয়জনমত পানি দিয়ে পাত্র অল্প সময়ের জন্য ঢেকে দিন। মাঝে মাঝে ঢাকনা তুলে আলু ডাবলি উপর নিচে নেড়ে দিন।
৫। আলু সিদ্ধ হয়ে পানি শুকিয়ে গেলে সবশেষে দারচিনি গুঁড়া, ভাঁজা চিনা বাদাম এবং ধনিয়া পাতা দিয়ে চামচের সাহায্যে সব হালকা ভেঙ্গে দিন। তারপর চুলা থেকে নামিয়ে আলু ডাবলির পুর ঠাণ্ডা করে নিন।
৬। এবার ময়দার খামির ১২ ভাগ করে গোল করে নিন। এই ১২ ভাগ থেকে ২৪ টি সিঙ্গারা তৈরি হবে।
৭। খামিরের এক ভাগ নিয়ে একটু লম্বাটে করে রুটি বেলুন। ছুরি দিয়ে রুটির মাঝখান বরাবর কেটে রুটি দু ভাগ করুন।
৮। এরপর কাটা রুটির এক অংশ নিয়ে পানের খিলির মত ভাঁজ দিয়ে ভিতরে আলুর পুর দিন। আঙুলে পানি নিয়ে সিঙ্গারার খোলা মুখে লাগিয়ে হাত দিয়ে চেপে মুখ বন্ধ করে দিন। এভাবে বাকি সিঙ্গারা তৈরি করে নিন।
৯। সবগুলো সিঙ্গারা তৈরি করা হয়ে গেলে চুলায় তেল গরম হতে দিন। তেল গরম হয়ে গেলে চুলার আঁচ মাঝারির থেকে একটু কমিয়ে সিঙ্গারা ছাড়ুন। আস্তে আস্তে অনেক সময় নিয়ে সিঙ্গারা ভেজে তুলুন। ভাঁজার পুরোটা সময় চুলার আঁচ মিডিয়াম রাখুন।
১০। তেলে একসাথে গাদাগাদি করে সব সিঙ্গারা না দিয়ে তেলের পাত্রে স্বাভাবিকভাবে যতগুলো ধরে  ঠিক ততগুলো দিয়ে ভাজুন। সিঙ্গারা বাদামি রং ধারন করলে এবং মচমচে হলে নামিয়ে নিন।
১১। গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার সিঙ্গারা।


খামির তৈরী করার সময় অবশ্যই ঠান্ডা পানি ব্যাবহার করবেন। ঠান্ডা পানি ব্যাবহার করলে সিঙ্গারার শেল মচমচে থাকবে। 



কমেন্ট


সাম্প্রতিক মন্তব্য


Logo

Upma tewari 10 months ago

Nc