shasthokothaxyz@gmail.com

+8801953906973

৫ উপায়ে দূর করুন মুখের ক্লান্তি

উজ্জ্বল, সুস্থ ত্বক নিয়ে ঘুম থেকে উঠতে দেখা যায় কেবল মডেলদেরকেই। বাস্তবে ত্বক তেমন ঝলমলে থাকে না। বিভিন্ন কারণেই সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর দেখা যায় ত্বক অনুজ্জ্বল, বিবর্ণ ও রুক্ষ হয়ে আছে। বিশেষ করে ঘুম ভালো না হলে মেকআপ করেও ত্বকের ক্লান্তি ঢাকা যায় না।

fgggg Md Ashiqur Rahman ভিউ: 312

Logo

পোস্ট আপডেট 2020-09-20 15:02:16   1 year ago

মুখ থেকে ক্লান্তির ছাপ মুছে ফেলার ৫টি সহজ উপায়-


১) চোখের জন্য ব্যবহার করুন ন্যুড বা গোলাপি আই পেন্সিল:
 বেশিরভাগ মানুষই কালো কাজল ব্যবহার করেন। কেউ হয়তো গাড় বাদামী বা নীল কাজল ব্যবহার করেন কদাচিৎ। কিন্তু ন্যুড কালারের আই পেন্সিল চেহারা থেকে ক্লান্তি দূর করতে পারে নিমিষেই। চোখের নিচের পাতায় ভেতরের দিকে (ওয়াটার লাইন বরাবর) ব্যবহার করুন ন্যুড বা পিঙ্ক আই পেন্সিল। নিমিষেই চোখ উজ্জ্বল দেখাবে।


২)গাড় ব্লাশ বা কনট্যুর ব্যবহার করবেন নাঃ
সকাল সকালই মুখে গাড় কন্ট্যুর করা হলে ক্লান্তি আরও বেশি ফুটে উঠবে। অন্যদিকে গাড় রঙের ব্লাশ ব্যবহার করলে মুখ দেখাবে জ্বরতপ্ত। বরং মুখে হালকা গোলাপি আভা নিয়ে আসে, এমন ব্লাশ ব্যবহার করুন আলতো হাতে।

৩) ব্যবহার করুন লিপ বাম: 
সকাল সকাল ম্যাট লিপস্টিক ব্যবহার করবেন না, মুখ আরও রুক্ষ দেখাবে। বরং হালকা রঙের লিপ বাম ব্যবহার করতে পারেন। এতে ঠোঁট প্রাকৃতিকভাবেই লালচে এবং পুরুষ্টু দেখাবে।


৪) মাসকারা ব্যবহার করতে ভুলবেন না: 
চোখের পাপড়ি কার্ল করে এরপর মাসকারা ব্যবহার করুন। এতে চোখে বড় এবং উজ্জ্বল দেখাবে, দূর হবে রাতের ক্লান্তি। ভলুমিনাইজিং মাসকারা ব্যবহার করতে পারেন এক্ষেত্রে।


৫) ব্যবহার করুন বরফ: 
ত্বকে আলতো করে বরফ মাসাজ করলে একদিকে যেমন ত্বকের লালচেভাব দূর হয়, তেমনই ত্বক মসৃণ দেখায়। যাদের চোখের নিচে ফুলে থাকে সকালে, তারা বরফ মাসাজ করতে পারেন। এতে ফোলাভাব দূর হবে। এছাড়াও ছোপ ছোপ দাগ দূর করতে ব্যবহার করতে পারেন হালকা গোলাপি অথবা ল্যাভেন্ডার রঙের কালার কারেক্টর। এতে হাইলাইটার বা শিমার ব্যবহার না করলেও ত্বক উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। কালার কারেক্টরের ওপরে ব্যবহার করুন ‘ব্রাইটেনিং’ কনসিলার।



কমেন্ট


সাম্প্রতিক মন্তব্য


Logo

Upma tewari 10 months ago

Thanks

Logo

Md.israfil 9 months ago

Thanks

Logo

Md.israfil 9 months ago

Thanks

Logo

Md Abdul Aziz 9 months ago

Thanks