shasthokothaxyz@gmail.com

+8801953906973

বেলের শরবতের উপকারিতা

সারাদিন ঘরে থাকলে কী হবে, গরম তো পড়ছেই। মাঝে মাঝে হালকা বৃষ্টি হয়ে তাপমাত্রা কিছুটা কমলেও বেশিরভাগ সময়েই গরম। এই সময়ে সুস্থ থাকার জন্য শরীর ঠান্ডা রাখা জরুরি। গরমের কারণে ঘাম হয়ে শরীর থেকে অনেক পানি বের হয়ে যায়।

fgggg Md Ashiqur Rahman ভিউ: 283

Logo

পোস্ট আপডেট 2021-02-06 22:53:11   1 year ago

বেলের শরবতের উপকারবেল আমাদের দেশের একটি দারুণ জনপ্রিয় ফল। অন্যান্য ফলের তুলনায় এর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কোনো অংশে কম নয়। গরমের দিনে এক গ্লাস বেলের শরবত শরীর ও মনে তৃপ্তি জোগায়। বেল পেটের নানা রকম রোগ সারাতে জাদুর মতো কাজ করে।কাঁচা বেল ডায়রিয়া ও আমাশয় রোগে ওষুধ হিসেবে কাজ করে। প্রচণ্ড গরমে শরীর ও মন দুটোই ঠাণ্ডা রাখতে পারে এক গ্লাস বেলের শরবত। 

বেলের শরবতের কী কী  উপকারিতা গুলো হলো:-

?বেলের পুষ্টিগুণ অন্যান্য ফলের চেয়ে অত্যন্ত বেশি। বেলের শরবত কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।
?বেলের শরবত খেলে পেট ঠাণ্ডা থাকে।
?প্রতিদিন বেলের শরবত পান করলে শরীরের ক্লান্তি দূর হয়। বিশেষজ্ঞরা বলেন, প্রতিদিনের শারীরিক পরিশ্রমের পর এক গ্লাস বেলের শরবত সারাদিনের ক্লান্তি দূর করে।
?বেলে আছে ভিটামিন সি। ভিটামিন সি গ্রীষ্মকালীন বহু রোগ বালাইকে দূরে রাখে।
?বেলে আছে ভিটামিন এ। যা চোখের বাহ্যিক ও অভ্যন্তরীণ অঙ্গগুলোর পুষ্ট জোগায়। ফলে চোখের বিভিন্ন রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।
? নিয়মিত বেল খেলে কোলন ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কা কমে যায়।
?সর্দি হলে বেল পাতার রস ১ চামচ খেলে সর্দি আর জ্বর ভাব কেটে যায়।
?কচি বেল টুকরা করে কেটে রোদে শুকিয়ে নিলে তাকে বেলশুট বলে। যাদের আলসার আছে তারা বেলশুটের সাথে পরিমাণ মতো বার্লি মিশিয়ে রান্না করে নিয়মিত খেলে আলসার দ্রুত সেরে যায়।
?বেল মুখের ব্রণ সারাতে সাহায্য করে।
?জন্ডিসের সময় পাকা বেল গোল মরিচের সাথে শরবত করে খেলে উপকার পাওয়া যায়।
?শিশুদের কানের ব্যথা ও ইনফেকশন সারাতে বেল পাতার জুড়ি নেই। বেল পাতা ও তিলের তেল জ্বাল দিয়ে ওই তেল ড্রপার দিয়ে কানে দিলে ব্যথা সেরে যায়।
?বেলের শাঁস পিচ্ছিল ধরনের। এমন হওয়ার কারণে এই ফল পাকস্থলীতে উপকারী পরিবেশ সৃষ্টি করে, খাবার সঠিকভাবে হজম করতে সাহায্য করে। ফলে কোষ্টকাঠিন্য দূর হয়।



কমেন্ট


সাম্প্রতিক মন্তব্য


Logo

Upma tewari 1 year ago

Nice

Logo

MD Hasan 1 year ago

Nice

Logo

Mizanur 1 year ago

Nice

Logo

Md Abdul Aziz 1 year ago

Thanks