shasthokothaxyz@gmail.com

+8801953906973

চুলের১০টি সমস্যার সমাধান

শীতের সময়ে চুলে আসে রুক্ষতা। পরিপূর্ণ যত্নের অভাবে চুল প্রকৃতির মতোই নির্জীব হয়ে যায়। সতেজতার অভাব দেখা দেয়। আবহাওয়াতে ধুলার আধিক্য, পানি পানের পরিমাণ কমে যাওয়া এমন বেশকিছু বিষয়ের প্রভাবে এ ধরনের সমস্যা হয় বলে জানা যায়। এ সমস্যা সমাধানে চুলের নিয়মিত যত্ন জরুরি।

fgggg Md Ashiqur Rahman ভিউ: 267

Logo

পোস্ট আপডেট 2021-02-07 17:19:53   9 months ago

আসুন দেখে নিই চুলের১০টি সমস্যার সমাধান 


 ১।  ভিটামিন-ই চুলের জন্য ভালো। দুই দিন পরপর যে কোনো তেলের সাথে ভিটামিন-ই ক্যাপসুল ভেঙে এর তেলটি মিশিয়ে মাথায় ভালোভাবে লাগিয়ে ২-৩ ঘণ্টা রাখুন। সারারাত রাখলে ভালো হয়। সকালে ধুয়ে ফেলুন। তবে বেশি গরম পানি দিয়ে কখনও চুল ধোয়া যাবে না।

২।প্রভাব চুলকে করে তোলে রুক্ষ। তাই যতটা সম্ভব চুলকে তাপ থেকে দূরে রাখার চেষ্টা করতে হবে। হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারে সতর্ক হোন। যতটা সম্ভব কম ব্যবহার করুন। একান্ত জরুরি হলে ব্যবহারের আগে থার্মাল প্রো-অ্যাকটিভ ফর্মুলা সমৃদ্ধ পণ্য ব্যবহার করুন।


আরো পড়ুনঃ চুল পড়া বন্ধ করার ঘরোয়া ৫ উপায়


৩. সপ্তাহে তিন দিন গরম তেল দিয়ে চুলের ভিতর ও মাথার তালু ম্যাসাজ করুন। ম্যাসাজের ৩০ থেকে ৪০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এ ম্যাসাজ চুল দ্রুত বাড়তে সাহায্য করে।

৪. শীতে অনেকেরই চুল পড়তে দেখা যায়। এই চুল পড়া রোধে তেল ও ক্যাস্টর অয়েল একসঙ্গে হালকা গরম করে নিন। ঠাণ্ডা হয়ে গেলে তাতে ভিটামিন-ই ক্যাপসুল ভেঙে অথবা ডিমের কুসুম মিশিয়ে চুলে লাগান। এতে চুল পড়া বন্ধ হয়ে যাবে।

৫. চুলের ডগা ফেটে গেলে চুল রুক্ষ হয়ে যায় এবং চুল বাড়তে সমস্যা হয়। ফলে চুলের ওই অংশ কেটে বাদ দিলে চুলের বৃদ্ধিতে কোনো বাধা থাকবে না। এছাড়া চুলের নিচের অংশ অল্প করে কেটে নিলে চুলের ডগা ভালো থাকবে।


আরো পড়ুনঃ মেয়েদের বিউটি টিপস । উজ্জ্বল ও লাবণ্যময় ত্বক পেতে কিছু বিউটি টিপস


৬. শীতে বেশীর ভাগ মানুষের চুল রুক্ষ আর শুষ্ক হয়ে পড়ে। তাই রুক্ষ এবং নিষ্প্রাণ চুলের জন্য আধা কাপ পালং শাক, ১ চা চামচ মধু এবং ১ চা চামচ অলিভ অয়েল বা নারিকেল তেল নিয়ে ব্লেন্ডারে ভালো মতো ব্লেন্ড করুন।এরপর এই মিশ্রণটি চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। চুলে সিল্কি ভাব আসবে ও চুল হবে মসৃণ ও প্রাণবন্ত।
৭. রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে ভালো করে চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ে শোওয়া দরকার। এতে মস্তিষ্কে রক্ত চলাচল ভালো হয়। মস্তিষ্কে রক্ত চলাচল বাড়লে চুল পড়া কমবে এবং চুলের গোড়া মজবুত হবে।

৮. খুশকির সমস্যা দূর করতে এক মুঠো জবা পাতা আর সমপরিমাণ মেহেদি পাতা পেস্ট করে নিয়ে তাতে ১ টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে চুলে দিতে পারেন। ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।



৯. সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিনের বেশি শ্যাম্পু করা ঠিক নয়। ঘন ঘন শ্যাম্পু ব্যবহারে চুল শুষ্ক হয়ে পড়ে। এছাড়া কেমিক্যাল ছাড়া মাইল্ড শ্যাম্পু ব্যবহার করাটাই চুলের জন্য ভালো।

১০. চুলে সূর্যের আলো লাগান। কেননা সূর্য থেকে প্রাপ্ত ভিটামিন ডি চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। একইসঙ্গে এটি মাথায় রক্ত চলাচলেও উন্নতি ঘটায়। এছাড়া চুলের এই যত্নগুলোর পাশাপাশি খান সুষম খাদ্য ও পচুর পরিমাণে পানি।



কমেন্ট


সাম্প্রতিক মন্তব্য


Logo

Sony Akter 9 months ago

thanks

Logo

Sony Akter 9 months ago

Wow

Logo

Mst keya 9 months ago

Wow

Logo

MD Hasan 9 months ago

Thanks

Logo

Ahanaf sha 9 months ago

Tnx

Logo

Upma tewari 9 months ago

Thanks

Logo

Farjana Rida 9 months ago

Thanks