shasthokothaxyz@gmail.com

+8801953906973

সুষম ও পুষ্টিকর খাবারের প্রয়োজনীয়তা

সুস্থ থাকতে হলে সচেতনতা অবলম্বন করতে হবে। সাথে নিশ্চিত করতে হবে নিরাপদ খাদ্য। অনেক সময় খাদ্য শৃঙ্খলসংশ্লিষ্ট যে কেউ খাদ্যকে অনিরাপদ করতে পারে। তাই খাদ্য নিরাপদ রাখার জন্য আপনাকে জানতে হবে কিছু উপায়। সেগুলো হলো

fgggg Md Ashiqur Rahman ভিউ: 223

Logo

পোস্ট আপডেট 2021-02-20 13:13:49   9 months ago

পরিষ্কার রাখাঃ

১। খাবার তৈরির পূর্বে ও খাবার তৈরির সময় সাবান ও পানি দিয়ে হাত ধৌত করুন।

২। টয়লেট ব্যবহারের পর হাত ধৌত করুন।

৩। খাবার তৈরিতে ব্যবহৃত জিনিসপত্র ও রান্নাঘর নিয়মিত ধৌত করুন।

৪। বিভিন্ন ধরনের কীটপতঙ্গ ও পোকামাকড় থেকে রান্নাঘর সুরক্ষিত রাখুন।

কাঁচা ও রান্না করা খাবার আলাদা রাখাঃ

১। কাঁচামাংস ও মাছ অন্যান্য খাবার থেকে আলাদা রাখুন।

২। কাঁচামাছ সবজি কাটার জন্য আলাদা ছুরি বা চাকু ব্যবহার করুন ।

সঠিক তাপমাত্রায় রান্না করাঃ

১। বিশেষ করে মাছ, মাংস ও ডিম ভালোভাবে সিদ্ধ করে রান্না করুন। 

২। ৭০ ডিগ্রি সেন্টি গ্রেড তাপ মাত্রায় খাবার রান্না করুন।

৩। বাসি খাবার পুনরায় খাওয়ার আগে ভাল করে তাপ দিয়ে নিন।রসুন: গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন এক কোয়া রসুন খেলে এলডিএল বা ব্যাড কোলেস্টেরল ও টোটাল কোলেস্টেরল ৯ শতাংশ পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণ করা যায়। রসুন রক্তচাপ কমাতেও সহায়ক। তবে রান্নায় রসুনের অনেক জৈব উপাদান নষ্ট হয়ে যায়। তাই সুফল পেতে প্রতিদিন ১–২ কোয়া কাঁচা রসুন খাওয়াই শ্রেয়।

আদা: আদা শরীরব্যথা কমাতে, বমি ভাব, অ্যাসিড রিফ্লাক্স, সর্দি-কাশি, গলাব্যথা কমাতে এবং বিপাকে সাহায্য করে। প্রতিদিন আদার রস, আদা ও লেবু দিয়ে রং–চা খেলে গলাব্যথা ও সর্দি-কাশির উপশম হয়।

লবঙ্গ: গবেষণায় দেখা গেছে, লবঙ্গ দাঁতের ব্যথা ও অ্যাসিডিটি কমাতে সাহায্য করে। লবঙ্গ চিবিয়ে রস খেলে, কিংবা আদা, দারুচিনি ও লবঙ্গ একসঙ্গে ফুটিয়ে চা পান করলে ঠান্ডাজনিত সমস্যা ও গলাব্যথা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়।

দারুচিনি: দারুচিনি ক্ষত ও ছত্রাকের সংক্রমণ সারাতে সাহায্য করে বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে। দারুচিনির গুঁড়া পানিতে গুলে খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

এলাচি: এলাচি ফুসফুস ও কিডনির প্রদাহ, অ্যাজমা, দাঁত ও মাড়ির ব্যথা, ফোলা ভাব এবং গলাব্যথা কমাতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে হজমক্ষমতা বাড়াতেও এটি সাহায্য করে।

গোলমরিচ: গোলমরিচ খাবার পরিপাকের জন্য প্রয়োজনীয় এনজাইম নিঃসরণে এবং ক্যালসিয়াম ও সেলেনিয়াম শোষণে সাহায্য করে। এ ছাড়া কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে, প্রদাহজনিত সমস্যা, বিষণ্নতা ও শরীরের ব্যথা কমাতে এটি খুব উপকারী। 



কমেন্ট


সাম্প্রতিক মন্তব্য


Logo

Sony Akter 9 months ago

Thanks