shasthokothaxyz@gmail.com

+8801953906973

মানসিক রোগের লক্ষণ ও সমাধান

পলি বিনতে মালেক

fgggg স্বাস্থ্য কথা ভিউ: 276

Logo

পোস্ট আপডেট 2021-03-13 14:13:55   8 months ago



মানসিক রোগ হচ্ছে রোগীর অস্বাভাবিক আচরণ, অস্বাভাবিক জীবন-যাপন যা মস্তিষ্কের রোগের কারণে হয়। যার জন্য স্বাভাবিক পারিবারিক, সামাজিক, পেশাগত জীবন ব্যাহত হয় অথবা রোগী তীব্র মানসিক যন্ত্রণা বা অস্বস্তিতে ভোগে।
আমাদের সবার জীবনেই কখনো কখনো মন খারাপ হতে পারে। কিন্তু সেটা বেশিক্ষণ বা বেশিদিন থাকার কথা নয়। অথবা ভালো কোন ঘটনায়, খবরে সেটা ভালো হয়ে যাওয়ার কথা। কিন্তু দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে যদি টানা মনখারাপ ভাব বা বিষণ্ণতা থাকে, তখন সেটা মানসিক রোগের উপসর্গ বলে ধরে নিতে হবে।
কখন বুঝবেন আপনি মানসিক রোগে আক্রান্ত-
মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ, জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মেখলা সরকার বলছেন, ''যখন কোন ব্যক্তির আচরণ, ব্যবহারে বড় ধরণের পরিবর্তন দেখা যায়, বিশেষ করে তার আবেগীয় প্রকাশের পরিবর্তন আসে এবং সেটা তার দৈনন্দিন কর্মকাণ্ডে, সম্পর্কে প্রভাব ফেলতে শুরু করে, তখনি তার প্রতি মনোযোগ দিতে হবে।


তিনি বলছেন, মানসিক রোগের লক্ষণ হতে পারে:


  • হঠাৎ হঠাৎ করে বেশি উত্তেজিত হয়ে ওঠা।

  • অনেকদিন ধরে নিজেকে সবার কাছ থেকে সরিয়ে গুটিয়ে রাখা।

  • টানা দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে মন খারাপ থাকা।

  • অন্যদের সঙ্গে একেবারে কথা বলতে না চাওয়া।

  • সবার সাথে ঝগড়া করা।

  • গায়েবি আওয়াজ বা কথা শুনতে পাওয়া।

  • অন্যদের অকারণে সন্দেহ করতে শুরু করা।

  • গোসল বা দাঁত মাজার মতো নিয়মিত প্রাত্যহিক কাজ করা বন্ধ করে নিজের প্রতি যত্ন না নেয়া।

  • যেসব কাজে আনন্দ পাওয়া সেসব কাজে নিরানন্দ ও আগ্রহ কমে যাওয়া।

  • সামাজিক সম্পর্ক থেকে নিজেকে সরিয়ে নেয়া।

  • নিজেকে নিয়ে নেতিবাচক চিন্তা করা বা নিজেকে দায়ী মনে হওয়া সবকিছুতে।

  • সিদ্ধান্তহীনতা বা মনোযোগ কমে যাওয়া এবং খুব তীব্র হলে আত্মহত্যার চিন্তা পরিকল্পনা ও চেষ্টা করে।

  • অতিরিক্ত শুচিবায়ুগ্রস্থ হয়ে ওঠা।

  • ঘুম অস্বাভাবিক কম বা বাড়তে পারে।

  • খাবারে অরুচি তৈরি হওয়া বা রুচি বেড়ে যাওয়া।

মানসিক রোগ কেন হয়?


প্রকৃত কারণ এখনও জানা যায়নি। কারণগুলোর মধ্যে জেনেটিক বা বংশগত প্রভাব, পরিবেশগত প্রভাব, শারীরিক মানসিক যৌন নির্যাতন, অস্বাভাবিকভাবে শিশুর লালন-পালন, ইন্টারনেট সহ অন্যান্য নেশা দ্রব্যের ব্যবহার, মস্তিষ্কের গঠন জনিত সমস্যা, নিউরো ট্রান্সমিটারের ভারসাম্যহীনতা, দীর্ঘমেয়াদী ঘুমের অভাব, দীর্ঘমেয়াদী অস্বাভাবিক চাপ, এছাড়া মৃগীরোগ, Stroke, ডায়াবেটিকস্, head injury, ব্রেইন টিউমার, কিডনি, যকৃত, হৃদপিণ্ডের ফেইলিয়রও মানসিক রোগের কারণ হতে
সম্পর্কের জটিলতা, মানিয়ে চলার সমস্যা, পারিবারিক দ্বন্দ্ব—এসব কারণে মনের ওপর চাপ তৈরি হতে পারে। এসব ক্ষেত্রে মনের চাপ কমাতে সাইকোথেরাপি বা কাউন্সেলিং অগ্রগণ্য। কিন্তু যদি মনের চাপ থেকে নিজের ক্ষতি করার প্রবণতা তৈরি হয়, তখন আবার ওষুধের প্রয়োজন হয়।ওষুধ যেমন একজন মানসিক রোগীর মস্তিষ্কের রাসায়নিক পদার্থের ভারসাম্য ফিরিয়ে আনে, তেমনি সাইকোথেরাপি বা কাউন্সেলিং তাঁর মনকে সুসংহত করার মাধ্যমে যৌক্তিক বিশ্বাস আর আচরণে উৎসাহিত করে।


মানসিক রোগের চিকিৎসা -


  •  একজন মানসিক রোগীর অভিজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা করাতে হবে এবং প্রয়োজনে মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে হবে।
  •  একজন মানসিক রোগীর ভাল হতে হলে অবশ্যই পারিবারের সহযোগিতার প্রয়োজন।
  •  একজন মানসিক রোগীর অভিজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা করাতে হবে এবং প্রয়োজনে মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে হবে।
  •  একজন মানসিক রোগীর ভাল হতে হলে অবশ্যই পারিবারের সহযোগিতার প্রয়োজন।
  •  স্বামী-স্ত্রী দুজনেরই উচিত ঝগড়া বিবাধ মনোমালিন্য না করা। 
  •  রোগীর সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা উচিত ন। 
  •  মানসিক রোগের চিকিৎসায় ওষুধের ভূমিকা অতি গুরুত্বপূর্ণ।

  • কিছু মানসিক রোগে ওষুধের পাশাপাশি সাইকোথেরাপিও প্রয়োজনীয়।

  • রোগের লক্ষণ গুরুতর হলে রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে, এমনকি রোগী অনিচ্ছুক হলেও।

  • চিকিৎসক ছাড়া অন্য কারও কথায় বা পরামর্শে ওষুধ বন্ধ করা করা যাবেনা। 

  • ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াকে ভয় না পেয়ে রোগকে নিরাময় বা নিয়ন্ত্রণের দিকে গুরুত্ব দিতে হবে।

রোগী কোন ধরনের মানসিক রোগে ভুগছেন এবং সেটার চিকিৎসার গতিপ্রকৃতি কেমন হবে, সেটা জানা রোগী ও স্বজনের অধিকার। সেটা ব্যাখ্যা করা চিকিৎসকের পেশাগত দায়িত্ব। তাই প্রশ্ন করুন, জেনে নিন। পাড়াপ্রতিবেশী, বন্ধুবান্ধবের কথায় কান দেবেন না। নিজে জানার চেষ্টা করুন।
মানসিক রোগ আর তার চিকিৎসা নিয়ে অহেতুক ভীতি ছড়াবেন না। এ ধরনের বেশির ভাগ রোগই নিয়ন্ত্রণযোগ্য, চিকিৎসা পাওয়ার অধিকার থেকে রোগীকে বঞ্চিত করবেন না।



কমেন্ট


সাম্প্রতিক মন্তব্য


Logo

Rozina Akhter 8 months ago

সুন্দর পোস্ট

Logo

Supty parvin 8 months ago

Wow

Logo

Tania Jannat 8 months ago

nice

Logo

Sony Akter 8 months ago

Thanks

Logo

Upma tewari 8 months ago

Thanks

Logo

Poly binte Malek 8 months ago

Nice

Logo

Kulsuma Akther jumur 8 months ago

So nice