shasthokothaxyz@gmail.com

+8801953906973

শীতে মেয়েদের ত্বকের যত্ন

শীতের আগমন ঘটেছে। এই আগমনে ত্বকের যত্নে সতর্ক থাকতে হবে। ত্বককে সুন্দর তরতাজা আর উজ্জ্বল রাখতে হলে অতিরিক্ত সূর্যরশ্মি অর্থাৎ অতিবেগুনি রশ্মি এড়িয়ে চলতে হবে। তা না হলে ত্বক বুড়িয়ে যাবে। সে ক্ষেত্রে একটি ছাতা বা টোকাজাতীয় টুপি ব্যবহার করা যেতে পারে।

fgggg Md Ashiqur Rahman ভিউ: 440

Logo

পোস্ট আপডেট 2020-11-24 09:38:37   1 year ago

সুস্থ, সুন্দর ত্বক সবাই চায়। কিন্তু বলা যতটা না সহজ, ত্বকে সুস্থতা বজায় রাখা তার চেয়ে অনেক কঠিন। সঠিকভাবে যত্ন না নেওয়ার কারণে ত্বকে নানা সমস্যা হতে পারে। তাই উজ্জ্বল এবং স্বাস্থ্যকর ত্বক পেতে খেয়াল রাখতে হবে নিজের।

ত্বকের যত্ন



ত্বকের শুষ্কতা দূর করতে ত্বকে পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি এবং পটাশিয়াম না থাকলে ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। প্রতিদিন গাজরের জুস খেলে ত্বকে পটাশিয়ামের অভাব দূর হবে। ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকবে। একটু বয়স হলেই ত্বকে বলিরেখা দেখা দেয়। এ ছাড়া ত্বক অনুজ্জ্বল ও দাগ হয়ে যায়। সূর্যের আলোতেও ত্বকে সানবার্ন হয়। নিয়মিত গাজর খেলে বাহ্যিক ক্ষতি থেকে ত্বক রক্ষা পায় এবং ত্বকে সহজে বয়সের ছাপ পড়ে না। গাজর মুখের বলিরেখা, দাগ ছোপ ও পিগমেন্টেশন প্রতিরোধ করে। ত্বকের স্বাস্থ্য ভেতর থেকে ভালো থাকে। গাজরে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আছে, যেগুলো ত্বককে ব্রণ থেকে রক্ষা করে। গাজরের ভিটামিন-এ ও বিটা ক্যারোটিন ত্বককে উজ্জ্বল করে। গাজর বেটে এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে নিয়মিত লাগালে ত্বক উজ্জ্বল হয়।

চুলের যত্ন :


চুল পড়া রোধে গাজরের ভিটামিন ও মিনারেল কার্যকর। নিয়মিত গাজরের জুস খেলে চুলের গোড়া মজবুত হয়। গাজরের ভিটামিন-সি, ভিটামিন-বি ও ভিটামিন-ই মাথার ত্বক ও চুলের গোড়ায় পুষ্টি প্রদান করে। নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।

স্বাস্থ্যকর খাবার :


ত্বক সুরক্ষিত রাখতে স্বাস্থ্যকর খাবার নিয়মিত খাওয়া জরুরি। প্রচুর ফলমূল, শাকসবজি, প্রোটিনযুক্ত খাবার খেতে হবে। বাদাম ও মাছ শরীর থেকে ক্ষতিকারক তেল বের করে ফেলতে সহায়ক। সোডা, মিষ্টিজাতীয় খাবার যতটা সম্ভব কম খেতে হবে।


নিয়মিত ঘুম :


নিয়মিত পরিপূর্ণ ঘুম হলে পুরো শরীর বিশ্রাম পায়। ঘুম না হলে বাড়তি চিন্তা যুক্ত হয়, যা ত্বকের সুস্থতাও ব্যাহত করে অনেকাংশে। রাতে অবশ্যই ছয়-আট ঘণ্টা ঘুমাতে হবে। ঘুমানোর সময় বিছানার চাদর এবং বালিশ যেন অবশ্যই পরিষ্কার থাকে, সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে।

ব্যায়াম :