shasthokothaxyz@gmail.com

+8801953906973

ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি করে যে১৩টি স্বভাব

নিখুত, সুন্দর ত্বক আমাদের সবারই কাম্য। কারণ সুস্থ সুন্দর ত্বক আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে অনেকাংশেই। আর এর জন্য অনেকেই ত্বকে অনেক কিছু মেখে থাকি।

fgggg Upma tewari ভিউ: 301

Logo

পোস্ট আপডেট 2020-12-17 17:51:14   11 months ago

ত্বক ভাল রাখতে কেবল যত্ন নিলেই চলে না, দরকার কিছু জরুরি বিষয়ে সতর্ক হওয়াও। কিন্তু দৈনিক জীবনযাপনে আপনিও কি এমন কিছু ভুল করে বসছেন, যার প্রভাবে আপনারও ত্বক সমস্যায় পড়ছে নিয়ত? তবে কয়েকটা সহজ নিয়ম মেনে চললেই মিটতে পারে সে সমস্যা।

১)  ধূমপান


ত্বকের যত্নের পথে সবচেয়ে বড় বাধা ধূমপান। শুধু হৃদরোগ বা ফুসফুসের ক্যানসার ডেকে আনাই নয়, ত্বকেরও প্রভূত ক্ষতি করে সিগারেটের নিকোটিন। এ ছাড়া সিগারেটের কার্বন মনো অক্সাইড ত্বকে অক্সিজেন পৌঁছানোর পথেও বাধা হয়ে দাঁড়ায়। ফলে ত্বক শুকনো হয় দ্রুত।


২)  ইচ্ছামতো ওষুধ


চিকিৎসকের পরামর্শ না মেনে ইচ্ছামতো ওষুধ কেনেন নিজেই? শরীরের জন্য তো বটেই, ত্বকের জন্যও খুব ক্ষতিকর এই স্বভাব। বেশ কিছু বাজারচলতি প্রচলিত ওষুধ অনেক সময় ত্বকের নানা ক্ষতি করে। সবার ত্বকের প্রকৃতিও সমান হয় না। সব ত্বকের সঙ্গে খাপ খায় না সব ধরনের ওষুধ। অথচ সে সব না জেনেই যথেচ্ছ ওষুধ কেনার এই ‘অসুখ’ ক্ষতি করে ত্বকেরও।


তাহলে আসুন জেনে নেই কোন কোন উপাদানগুলো মুখের জন্য ক্ষতিকর-  


৩)   ভ্যাসলিন


ভ্যাসলিন সারা বিশ্বেই ত্বক আর্দ্র করার একটি উৎকৃষ্ট উপাদান। এটি শুষ্ক ত্বক প্রতিরোধে উপকারী। বিভিন্ন কাটাছেঁড়া বা পোকামাকড়ের কামড়ে এটি ব্যবহার করা যায়। তবে ব্রণ হলে কখনোই ভ্যাসলিন মুখে লাগাবেন না। কারণ, এটি ব্রণ বাড়িয়ে দিতে পারে।


৪)   বডি লোশন


বডি লোশন তৈরি করা হয় শরীরের জন্য, মুখের জন্য নয়। শরীরের ত্বক মুখের ত্বকের তুলনায় পুরু হয়। আর বডি লোশনকেও সে অনুযায়ী তৈরি করা হয়।


৫)   হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড


এই শক্তিশালী উপাদানটি কেটে গেলে ও পুড়ে গেলে সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করতে কাজ করে। তবে এটি ব্রণের চিকিৎসায় কখনোই ভালো উপাদান নয়। এটি প্রদাহ ও অ্যালার্জি তৈরি করতে পারে।


৬)  গরম পানি


গরম পানির গোসল বা বাষ্পে গোসল অনেকেরই পছন্দ হতে পারে। তবে গরম পানি মুখের ত্বকে লাগানো ঠিক নয়। এটি মুখের ত্বককে শুষ্ক করে তোলে।


৭)   লেবু


লেবুর অনেক স্বাস্থ্যকর গুণ রয়েছে। তবে এটি মুখের ত্বকের পিএইচের ভারসাম্য ক্ষতিগ্রস্ত করে। তাই এটি ত্বকে ব্যবহার করবেন না।


৮)   নেইলপলিশ


অনেক মেয়েরা নেইলপলিশ দিয়ে কপালে টিপ আঁকতে দেখা যায়।এই কাজটিও করা ঠিক নয়। কারন নেইলপলিস এর মধ্যে অনেক রাসায়নিক উপাদান থাকে যা মুখের ত্বকের অনেক ক্ষতি করতে পারে।


৯)   মেয়নেজ


মেয়নেজ তৈরি হয় ডিম, তেল আর ভিনেগারের সংমিশ্রণে। এ উপাদানগুলো রুক্ষ চুলের জন্য খুবই উপকারী। কিন্তু এটি মোটেও মুখের ত্বকের জন্য ভালো নয়। কাজেই এটি ব্যবহার না করাই ভালো।


১০)   টুথপেস্ট


অনেকেই ব্রণ শুকিয়ে ফেলার জন্য টুথপেস্ট ব্যবহার করেন। তবে এ কাজ কখনোই করতে যাবেন না। টুথপেস্ট মুখের ত্বকে অস্বস্তি বাড়ায় এবং জটিল সমস্যা তৈরি করতে পারে। যেমন : কেমিক্যাল বার্ন, স্কার্স ইত্যাদি।


১১)    বেকিং সোডা


অনেকেই ভাবেন, বেকিং সোডার ব্যবহার ত্বকের মৃতকোষ দূর করতে ভালো। বিশেষজ্ঞরা বলেন, এর ব্যবহারে ত্বকের ক্ষতি হয় এবং ত্বকের আর্দ্রতা নষ্ট হয়। তাই মুখে বেকিং সোডা ব্যবহার না করার পরামর্শই দেন বিশেষজ্ঞরা।


১২)   চিনি


অনেকে ত্বকের মৃতকোষ দূর করার জন্য চিনি ব্যবহার করেন। তবে এটি লাভের বদলে ক্ষতি বেশি করে। এটি ত্বকের নমনীয়তা কমিয়ে দেয়। তাই মুখে এই উপাদান ব্যবহার থেকেও বিরত থাকুন। আর খুব প্রয়োজন হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।


১৩)  তেল-মশলা


খাবারের সঙ্গে শরীরে প্রবেশ করা তেল-মশলার পরিমাণ কমাতে না পারলে ত্বকের ক্ষতি প্রতিরোধ প্রায় অসম্ভব। শরীরের অরিকিক্ত তেল ত্বকের কোষের মুখগুলোকে আটকে দেয়। এর প্রভাবে ব্রণের শিকার হতে হয় অনেককেই।



কমেন্ট


সাম্প্রতিক মন্তব্য


Logo

Sony Akter 11 months ago

ধন্যবাদ

Logo

Upma tewari 11 months ago

Thanks